AB Bank
ঢাকা শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

ইডেনে এসেও বল করলেন না স্টার্ক!


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০৭:৫২ পিএম, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪
ইডেনে এসেও বল করলেন না স্টার্ক!

এবারের আইপিএলটা যত দ্রুত সম্ভব ভুলতে চাইবেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের অস্ট্রেলিয়ান স্পিডস্টার মিচেল স্টার্ক। নিজের ক্যারিয়ারে এরকম খারাপ অভিজ্ঞতা অতীতে তার হয়েছে কিনা সেটাও হয়ত মনে করতে হবে তাকে। এই মৌসুমের আইপিএলে ফর্মের ধারে কাছে নেই তিনি।

আইপিএলের নিলামে সব থেকে দামি ক্রিকেটার হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার তারকা ক্রিকেটারকে দলে নিয়েছিল কিং খানের ফ্র্যাঞ্চাইজি। আশা করা হয়েছিল ভারতের মাটিতে গত বিশ্বকাপে যেরকম পারফরমেন্স করেছিলেন, তেমনই হয়ত পাওয়া যাবে তার থেকে। কিন্তু কোথায় কি? অস্ট্রেলিয়ার হয়ে বিশ্বকাপ খেলা স্টার্কের সঙ্গে কেউ এই স্টার্কের মিলই খুঁজে পাচ্ছে না। ছিটে ফোটাও চেনা দায়বদ্ধতা নেই। বোলিংয়ে কোনও ঝাঁঝ নেই।

অস্ট্রেলিয়ানদের মধ্যে থাকা চেনা আগ্রাসন তাও নেই নাইট রাইডার্সের এই তারকা পেসারের মধ্যে। এরই মধ্যে তিনি চোট পেয়ে বসলেন। দ্বিতীয় লেগ যখন শুরু বলে সকলে অপেক্ষায় তার ছন্দে ফেরার, ঠিক তখনই বাঁহাতের আঙুলে চোটের জন্য বুধবার অনুুশিনলই করতে পারলেন না অস্ট্রেলিয়ার ফাস্ট বোলার। মাঠে এসেও কাটালেন নেটের বাইরে।

নেটে গা ঘামাতে দেখা গেল শ্রীলঙ্কার পেসার দুষ্মন্ত চামিরাকে। কারণ স্টার্ক শুক্রবার না খেললে শিকে ছিঁড়তে পারে তার। অবশ্য টিম ম্যানেজমেন্টেরও উচিত স্টার্ককে অন্তত একটা বা দুটো ম্যাচে বিশ্রাম দিয়ে ফের কামব্যাক করানো। কারণ সাত ম্যাচে তিনি নিয়েছেন মাত্র ৬ উইকেট। ইকোনমি ১১.৪৮। স্রেফ ২৪.৭৫ কোট দিয়ে দলে নেওয়া হয়েছে বলেই তাকে খেলাতে গেলে আখেরে দলেরই ক্ষতি হবে, তা বলাই বাহুল্য। কারণ বল হাতে হর্ষিত রানা, বৈভব আরোরাদের মতো জুনিয়র বোলাররাও এবারের আইপিএলে স্টার্কের থেকে বেশি উইকেট নিয়েছেন, তাও আবার কম রান দিয়ে। ফলে জোর করে তাকে খেলাতে গেলে স্টার্কের আত্মবিশ্বাস যে আরও কমবে তা বলাই বাহুল্য। আর সেক্ষেত্রে যে দলেরও ক্ষতি হবে, তাও বলার অপেক্ষা রাখে না।

শুক্রবারের ম্যাচে তাই চামিরার দিকেই পাল্লা ভারী। একবার তাকেও সুযোগ দিয়ে দেখতে চাইছে টিম ম্যানেজমেন্ট। বিশেষ করে গৌতম গম্ভীর চাইছেন নিজের পুরোনো অস্ত্রকে একবার দেখে নিতে। গৌতি যখন লখনউতে ছিলেন, তখন ১২টি ম্যাচে খেলেছিলেন দুষ্মন্ত চামিরা।


গত সাত ম্যাচে মিচেল স্টার্কের পারফরমেন্স এরকম-
 

সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে ০/৫৩

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে ০/৪৭

দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে ২/২৫

চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে ০/২৯

লখনউ সুপার জায়ান্টসের বিপক্ষে ৩/২৮

রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে ০/৫০

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর  বিপক্ষে ১/৫৫

এই পারফরমেন্সের পর স্টার্ককে জোর করে পাঞ্জাবের বিপক্ষে হয়ত নামাতে চাইবে না কেকেআর থিঙ্ক ট্য়াঙ্ক। আইপিএলে দুষ্মন্ত চামিরা নিয়েছেন ১২ ম্যাচে ৯  উইকেট। ফলে তাকে সুযোগ দিয়ে দেখতে চাইবে টিম ম্যানেজমেন্ট।

 

একুশে সংবাদ/এস কে   

Link copied!