AB Bank
ঢাকা সোমবার, ২৪ জুন, ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

মেসিকে ‘বামন’ বলে আক্রমণ


Ekushey Sangbad
স্পোর্টস ডেস্ক
০২:০৮ পিএম, ৮ এপ্রিল, ২০২৪
মেসিকে ‘বামন’ বলে আক্রমণ

হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট নিয়ে বেশ কিছুদিন মাঠের বাইরে ছিলেন লিওনেল মেসি। এজন্য ইন্টার মায়ামির জার্সিতে ৪ ম্যাচ খেলতেও পারেননি। তবে চোট কাটিয়ে রোববার মায়ামির ডেরাতে ফিরেই গোলের দেখা পেয়েছেন তিনি। কিন্তু দলকে জেতাতে পারেননি এই আর্জেন্টাইন সুপারস্টার।

এর আগে কনকাকাফ চ্যাম্পিয়ন্স কাপের শেষ আটের লড়াইয়ে মন্টেরের বিপক্ষে ম্যাচে বেঞ্চে বসে কাটাতে হয়েছে মেসিকে। এই ম্যাচেই তার বিরুদ্ধে অসদাচরণের অভিযোগ ওঠে। মেক্সিকোর ক্লাবটির ড্রেসিংরুমে গিয়ে নাকি চিৎকার করেছেন বিশ্বকাপজয়ী এই ফুটবলার। এক এক সূত্রের বরাত দিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করেছিল ইএসপিএন।

তবে ঠিক কী কারণে মেসি এমনটা করেছিলেন তা জানায়নি সংবাদমাধ্যমটি। রোববার অবশ্য পুরো বিষয়টি জানা গেছে। মেসিকে নাকি ‘বামন’ বলে সম্বোধন করেছিলেন মন্টেরের সহকারী কোচ নিকো সানচেজ। আর এজন্যই প্রতিপক্ষের ড্রেসিংরুমে গিয়ে চিৎকার করেছিলেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। এ সময় তার সঙ্গে জর্দি আলবা, লুইস সুয়ারেজ এবং কোচ টাটা মার্তিনোও ছিলেন।

মেসিকে ‘বামন’ বলার ভিডিও ফাঁস হওয়ায় রোববার সামাজিক মাধ্যমে ক্ষমা চেয়েছেন মন্টেরের সহকারী কোচ সানচেজ। অবশ্য ক্ষমা চাওয়ার ভিডিওতে একবারের জন্যও মেসির নাম উচ্চারণ করেননি তিনি।

সানচেজ বলেছেন, ‘বামনটি ছিল, শয়তানের মুখ নিয়ে। সে আমার মুখের পাশে মুষ্টিবদ্ধ হাত রেখে বলে, আপনি নিজেকে কী মনে করেন? তবে আমি তার দিকে তাকাইনি, আমার দৃষ্টি ছিল দূরে। আমি কখনো উত্তর দিইনি। পরিস্থিতি খারাপ হয়ে গিয়েছিল।’

ভিডিওতে শুধু মেসিকেই গালি দেননি সানচেজ, মায়ামির কোচ মার্তিনোকেও দিয়েছেন। ভিডিওতে মন্টেরের সহকারী কোচ বলেন, ‘টাটা মার্তিনো, কী দরিদ্র এক পুতুল। তাকে সামনে পেয়ে বলেছিলাম, বোকা, তুমি কাঁদবে? বোকা, তুমি কাঁদবে? কী দারুণ এক পুতুল!’

সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করা ভিডিওতে মেসির কাছে ক্ষমা না চাইলেও মার্তিনোর কাছে চেয়েছেন সানচেজ। তিনি বলেন, ‘যেহেতু আমি জেরার্দো মার্তিনেজকে চিনি না তাই অসম্মানজনক আচরণ করেছি। এর জন্য ক্ষমা চাচ্ছি। আমিও তাদের মতোই একজন আর্জেন্টাইন। আর সব সময় চাইব ক্লাবের পাশে থাকতে। কারণ এখানে আমি দায়িত্ব নিতে এসেছি।’

উল্লেখ্য, এই ঘটনাটি ঘটেছিল চলতি মাসের ৫ এপ্রিল। যেখানে ঘরের মাঠে মন্টেরেরকে আতিথেয়তা দিয়েছিল ইন্টার মায়ামি। সেদিন ২–১ গোলে হেরে যাওয়া ম্যাচে খেলেননি মেসি। ম্যাচ শেষ হওয়ার পরেই টানেলে ঘটনাটি ঘটেছিল।
 

একুশে সংবাদ/এস কে

 

 

 

 

Link copied!