AB Bank
ঢাকা শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

সাকিবের অলরাউন্ড নৈপুন্যে ঢাকাকে হারালো রংপুর


Ekushey Sangbad
ক্রীড়া প্রতিবেদক
০৪:৫৮ পিএম, ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
সাকিবের অলরাউন্ড নৈপুন্যে ঢাকাকে হারালো রংপুর

দশম বিপিএলে দুর্দান্ত ঢাকাকে হারিয়েছে রংপুর রাইডার্স। যেখানে ব্যাট-বল হাতে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে দলকে জেতালেন সাকিব আল হাসান। তার নৈপূন্যে ঢাকাকে ৬০ রানে হারিয়েছে রংপুর।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে চার উইকেট হারিয়ে ১৬৫ রান  করে রংপুর রাইডার্স। জবাবে লক্ষ্য তাড়া করতে মাঠে নেমে ১৮ ওভারে ১১৫ রানেই গুটিয়ে যায় ঢাকা।ফলে রংপুর জয় পায় ৬০ রানে।

ফলে এই জয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে তালিকায় নিজেদের শীর্ষস্থান আরো পোক্ত করেছে রাইডার্সরা।

রংপুরের দেওয়া লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় ঢাকা। দলীয় চার রানেই দুই উইকেট হারিয়ে ফেলে দলটি। ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারে সাব্বির হোসেন (১) এবং চতুর্থ ওভারে সাইম আইয়ুবকে (২) সাজঘরে ফেরান শেখ মাহেদী।শুরুর ধাক্কা সামলে আলেক্স রসকে সঙ্গে নিয়ে দলীয় ইনিংস এগিয়ে নেন মোহাম্মদ নাঈম। ব্যাট হাতে স্ট্রাগল করা রস অবশ্য বেশিদূর এগোতে পারেননি। ম্যাচের সপ্তম ওভারে সাকিবের ওপর চড়াও হতে গিয়ে মোহাম্মদ নবীর তালুবন্দী হন তিনি (২)।ঘরের মাঠে ব্যাট হাতে ব্যর্থ হয়েছেন গুলবাদিন নাইব (১৩) ও মোসাদ্দেক হোসেনও (১)। তবে রংপুরের বোলারদের বিরুদ্ধে লড়াই করে ৩১ বলে ৪৪ রানের ইনিংস খেলেন নাঈম। তার বিদায়ে ম্যাচ থেকেই ছিটকে যায় দুর্দান্ত ঢাকা।শেষ মুহূর্তে স্রেফ হারের ব্যবধান কমিয়েছেন তাসকিন (১৫) ও ইরফান শুক্কুর (২১)। রংপুরের আগুনে বোলিংয়ে ঢাকার ইনিংস থামে ১১৫ রানে।রংপুরের হয়ে সর্বোচ্চ তিন উইকেট শিকার করেন সাকিব। এছাড়াও দুটি করে উইকেট শিকার করেন মাহেদী, সালমান ও হাসান।

এর আগে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ঢাকা দলপতি মোসাদ্দেক হোসেন। এতে আগে ব্যাটিং করে রংপুর। দলটির হয়ে ইনিংস উদ্বোধনে নামেন বাবর আজম ও রনি তালুকদার। ইনিংসের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করে তারা দুজন। উদ্বোধনী জুটিতে তাদের ব্যাট থেকে আসে ৬৭ রান।

ম্যাচের অষ্টম ওভারে এ জুটিতে আঘাত হানেন আরাফাত সানি। তার ঘূর্ণিতে সাজঘরের পথ ধরেন রনি (৩৯)। পরে ক্রিজে আসেন সাকিব আল হাসান। উইকেটে এসেই ঝোড়ো গতিতে রান তুলতে থাকেন তিনি। এ সময় তাকে সঙ্গ দিচ্ছিলেন বাবর।

ম্যাচের ১৫তম ওভারে ফিফটির পথে থাকা বাবরকে (৪৭) ফেরান মোসাদ্দেক। একই ওভারে আউট হন সাকিবও (৩৪)। মোসাদ্দেকের ঘূর্ণিতে নাঈমের তালুবন্দী হন তিনি।

এরপর বাইশ গজে আসেন আজমতউল্লাহ ওমরজাই। তবে উইকেটে থিতু হওয়ার আগেই সাজঘরের পথ ধরেন তিনি (৩)। শেষ পর্যন্ত মোহাম্মদ নবীর (২৯*) ক্যামিওতে রংপুরের ইনিংস থামে ১৭৫ রানে।
ঢাকার হয়ে সর্বোচ্চ দুই উইকেট শিকার করেন মোসাদ্দেক।

একুশে সংবাদ/এস কে

Link copied!