AB Bank
ঢাকা সোমবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

বায়ুদূষণের তালিকায় শীর্ষে ঢাকা


Ekushey Sangbad
নিজস্ব প্রতিবেদক
১২:০৪ পিএম, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
বায়ুদূষণের তালিকায় শীর্ষে ঢাকা

রাজধানী ঢাকার বায়ুর মানের স্কোর হচ্ছে ২৭৪। এর অর্থ দাঁড়ায় এখানকার বায়ু খুবই অস্বাস্থ্যকর পর্যায়ে পৌঁছেছে। আর এতেই তালিকার শীর্ষে ওঠে গেছে ঢাকা।

শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টা ৩২ মিনিটে বায়ুর মান পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্সের (আইকিউএয়ার) সূচকে এ অবস্থান করে নেয় আমাদের শহর ঢাকা।

তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে এশিয়ার আরেক দেশ চীনের শেনিয়াং শহর। এই শহরটির দূষণ স্কোর ১৯০ অর্থাৎ এখানকার বায়ুর মান অস্বাস্থ্যকর।

তালিকায় এরপরেই রয়েছে এশিয়ার আরেক দেশ মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন। সেখানকার বায়ুর মানও অস্বাস্থ্যকর। চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে পাশের দেশ ভারতের কলকাতা শহর। তারপর পাকিস্তানের করাচি শহর।

স্কোর শূন্য থেকে ৫০ এর মধ্যে থাকলে বায়ুর মান ভালো বলে বিবেচিত হয়। ৫১ থেকে ১০০ হলে মাঝারি বা সহনীয় ধরা হয় বায়ুর মান। সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয় ১০১ থেকে ১৫০ স্কোর। ১৫১ থেকে ২০০ পর্যন্ত অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয়। স্কোর ২০১ থেকে ৩০০ হলে খুবই অস্বাস্থ্যকর বলে বিবেচনা করা হয়। এছাড়া ৩০১-এর বেশি হলে তা দুর্যোগপূর্ণ বলে ধরে নেওয়া হয়।

এ নিয়ে একাধিকবার দূষিত শহরের তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে ঢাকা। দীর্ঘদিন ধরে বায়ুদূষণে ভুগছে শহরটি। বর্ষাকালে কিছুটা উন্নতি হলেও শীতকালে অস্বাস্থ্যকর হয়ে যায় এই শহর।

তবে এর জন্য তিনটি প্রধান উৎস- ইটভাটা, যানবাহনের ধোঁয়া ও নির্মাণ কাজের ধুলোকে দায়ী করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর ও বিশ্বব্যাংক। ২০১৯ সালের মার্চ মাসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরে প্রতিষ্ঠান দুটি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) তথ্য অনুসারে, বায়ুদূষণের ফলে স্ট্রোক, হৃদরোগ, ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ, ফুসফুসের ক্যান্সার এবং তীব্র শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণের কারণে মৃত্যুহার বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে বিশ্বব্যাপী প্রতি বছর আনুমানিক ৭০ লাখ মানুষ মারা যায়।

ক্রমবর্ধমান এই পরিস্থিতিতে বিশ্বের অন্যতম দূষিত অঞ্চলে পরিণত হয়েছে দক্ষিণ এশিয়া। ফলে দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশে জনপ্রতি পাঁচ বছরেরও বেশি আয়ু কমতে পারে বলে আশঙ্কা সংশ্লিষ্টদের।

 

একুশে সংবাদ/বিএইচ
 

Link copied!