ঢাকা রবিবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০২২, ১০ মাঘ ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

মিরপুর টেস্টের প্রথম দিন বৃষ্টি আর আলোকস্বল্পতার বিড়ম্বনা


Ekushey Sangbad
ক্রীড়া প্রতিবেদক
০৩:৪৭ পিএম, ৪ ডিসেম্বর, ২০২১
মিরপুর টেস্টের প্রথম দিন বৃষ্টি আর আলোকস্বল্পতার বিড়ম্বনা

বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার মিরপুরে টেস্টের প্রথম দিনেই বৃষ্টি আর আলোকস্বল্পতার বিড়ম্বনায় পড়েছে। বৃষ্টির পর আলোকস্বল্পতার কারণে বিকেলে ৪টা  ৮ মিনিটে প্রথম দিনের খেলা সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়।

বৃষ্টির কারণে ২৫ মিনিট খেলা বন্ধ থাকার পর আপাতত আলোকস্বল্পতায় খেলা বন্ধ হয়ে যায়। এরপর আর খেলা শুরু হয়নি। তবে আগামীকাল খেলা ৩০ মিনিট আগে শুরু হবে। সকাল ১০টার পরিবর্তে ৯টা ৩০ মিনিটে শুরু হবে।

আলোকস্বল্পতার কারণে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে ৫৭ ওভারে দুই উইকেটে পাকিস্তানের সংগ্রহ ১৬১ রান। বাবর আজম ৬০ ও আজহার আলী ৩৬ রানে অপরাজিত আছেন।

দ্বিতীয় সেশনে খেলা শুরুর ৫০ মিনিট পর বৃষ্টির জন‍্য বন্ধ হয়ে গেছে খেলা। হালকা বৃষ্টির কারণে ২৫ মিনিট খেলা বন্ধ ছিল।  ঘূর্ণিঝড় জোয়াদের প্রভাবে শুরু থেকেই আকাশ মেঘে ঢাকা। খেলা চলছিল ফ্লাড লাইট জ্বালিয়ে। বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার সময় পাকিস্তানের স্কোর ৪৪ ওভারে ২ উইকেটে ১২৩।

বৃষ্টির পর খেলা শুরু হলেই নতুন জীবন পান বাবর আজন। ব্যক্তিগত ৩৯ রানের মাথায় সাকিবের বলে জীবন পান তিনি। সৈয়দ খালেদ আহমেদের হাতে জীবন পাওয়ার পর দ্রুতই পঞ্চাশ স্পর্শ করলেন বাবর আজম। ৭৫ বলে বলে সাত চার ও এক ছক্কায় এসেছে পাকিস্তান অধিনায়কের ফিফটি।

চা-বিরতির পর দুই দলই ফিরেছিল মাঠে। কিন্তু মাঝপথেই তাদের থামিয়ে দিলেন দুই আম্পায়ার। জানালেন, যথেষ্ট আলো না থাকায় এই মুহূর্তে খেলা শুরু সম্ভব নয়। শুরু থেকেই আকাশ মেঘে ঢাকা। তখন থেকেই খেলা হচ্ছে ফ্লাড লাইট জ্বালিয়ে।

এর আগে মিরপুর শেরে-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ফিল্ডিংয়ে নামে স্বাগতিকরা। ব্যাটিংয়ে নেমে পেসার এবাদত ও খালেদের বোলিংয়ের শুরুটা হয় আঁটসাঁট। কিন্তু ধীরে ধীরে সেট হয়ে হাত খুলতে শুরু করেন দুই পাকিস্তানি ওপেনার আবিদ ও শফিক। দুজনের জুটি ৫০ পেরিয়ে যায়। অবশেষে ১৯তম ওভারে সেট হয়ে যাওয়া দুই ব্যাটারের জুটি ভাঙেন স্পিনার তাইজুল। 

এই বাঁহাতি স্পিনারের বল শফিকের ব্যাট ও প্যাডকে ফাঁকি দিয়ে স্ট্যাম্প ভেঙে দেয়। ৫০ বল খেলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ২৫ রানের ইনিংস খেলে বিদায় নেন শফিক। ৫৯ রানে প্রথম উইকেট হারায় পাকিস্তান। এরপর দলীয় ৭০ রানের মাথায় পাকিস্তান শিবিরে আবারও আঘাত হানেন তাইজুল। চট্টগ্রাম টেস্টে সেঞ্চুরিয়ান আবিদ আলি তাইজুলের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ৮১ বলে ৬ চারে ৩৯ রান করেন।

বল হাতে তাইজুল ইসলাম ১৭ ওভারে ৪৯ রানে দুই উইকেট নেন। এছাড়া আর কেউ উইকেট শিকার করতে পারেনি।

একুশে সংবাদ/এসএস