AB Bank
ঢাকা রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
ekusheysangbad QR Code
BBS Cables
Janata Bank
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাবাংলা
  4. আন্তর্জাতিক
  5. অর্থ-বাণিজ্য
  6. খেলাধুলা
  7. বিনোদন
  8. শিক্ষা
  9. তথ্য-প্রযুক্তি
  10. অপরাধ
  11. প্রবাস
  12. রাজধানী

বিএনপির এমপিদের পদত্যাগ, চিন্তিত নয় আওয়ামী লীগ


Ekushey Sangbad
নিজস্ব প্রতিবেদক
০৬:৩৫ পিএম, ১২ ডিসেম্বর, ২০২২
বিএনপির এমপিদের পদত্যাগ, চিন্তিত নয় আওয়ামী লীগ

গত ১০ ডিসেম্বর বিএনপি এসেছিল সরকারের পদত্যাগ নিশ্চিত করতে এসে নিজেরাই রোববার সংসদ সচিবালয়ে স্পিকার শিরীন শারমীন চৌধুরী নিজেদের পদত্যাগ পত্র জমা দিয়েছেন। এতে আওয়ামী লীগ মোটেও চিন্তি নয়। তাদের পদত্যাগের মধ্যদিয়ে আবারো প্রমানীত হল তারা আসলে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা ও গণতন্ত্রকে বাধাগ্রস্ত করতে চায়। এ পদত্যাগে সংসদ কিংবা সরকারের কোনো ক্ষতি হবে না।

 

সোমবার (১২ ডিসেম্বর) বিএনপির নেতাদের পদত্যাগ প্রসঙ্গে এসব কথা জানান আওয়ামী লীগের নেতারা।

 

আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড মনে করছে, জাতীয় সংসদ থেকে বিএনপির সাত সংসদ সদস্যের পদত্যাগ সংসদীয় রাজনীতিতে প্রভাব ফেলবে না। এমনকি জাতীয় রাজনীতিতেও এই পদত্যাগ কোনো ভূমিকা রাখবে না। কেননা, ৩৫০ সদস্যের সংসদে সাতজন পদত্যাগ করলে জাতীয় সংসদের কার্যক্রমে কোনো ব্যত্যয় ঘটবে না। পদত্যাগকারীদের আসনে উপনির্বাচন হবে।

বিএনপির এমপিদের পদত্যাগ, আ. লীগ বলল ভুল সিদ্ধান্ত | 1211868 | কালের কণ্ঠ |  kalerkantho

 

বিএনপির এমপিদের পদত্যাগে কিছু যায় আসে না বলে সাফ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বিএনপির সংসদ সদস্যরা পদত্যাগ করলেও জাতীয় সংসদের কিছু যায় আসে না। তাদের সাতজন চলে গেলে সংসদ অচল হবে না। বিএনপির সংসদ সদস্যদের পদত্যাগের সিদ্ধাকে ‘ভুল’ বরেও আখ্যায়িত করেন আওয়ামী লীগের এই সেকে- এই কমা-।

 

তিনি বলেন, জাতীয় সংসদে আওয়ামী লীগের বিশাল সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে। বিএনপির সাতজন চলে গেলে সংসদ অচল হয়ে পড়বে, এটা ভাবার কোনো কারণ নেই। এর জন্য দলটিকে অনুতাপ করতে হবে।

 

তিনি বলেন, সাড়ে ৩শ’ আসনের বিপরীতে ৬ ও ৭ টি আসনের কারণে সংসদ অচল হবে না। সমাবেশের নামে কোটি কোটি টাকা ব্যয় হচ্ছে, এ টাকা কোন ব্যবসায়ী বা শিল্পপতি দিচ্ছে তা আমরা সব জানি, সময় মতো তা প্রকাশ করা হবে।

সাবেক খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম রাজশাহী মেডিকেলে ভর্তি | প্রথম আলো

 

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেন, ৭ জন সদস্য সংসদ থেকে পদত্যাগ করেছেন শুনলাম। এতে আওয়ামী লীগে কোনো প্রভাব ফেলবে না। সংসদীয় কার্যক্রম বা জাতীয় রাজনীতিতে এ সিদ্ধান্ত কোনো ভূমিকাও রাখবে না। শুধু আইনি বাধ্যবাধকতা থেকে ওই সব আসনে উপনির্বাচন হবে।

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, বিএনপি সাত জন এমপি পদত্যাগে আওয়ামী লীগে কিছু আসে যায় না। তবে বিএনপি সময় হলে বুঝতে পারবে, তারা কি ভুল করেছে।

বিএনপির এমপিদের পদত্যাগ রাজনৈতিক স্টান্টবাজি: হান...

 

তিনি বলেন, গণতান্ত্রিক অধিকার আছে আপনি পদত্যাগ করতে পারেন। কিন্তু সেটা মাঠে হয় না, স্পিকারের কাছে দিতে হয়। এখানেও রাজনৈতিক স্ট্যান্টবাজি। সাড়ে ৩শ’ জনের মধ্যে ৭ জনের পদত্যাগে সরকারের কিছু যায় আসে না। এতে আমরা মোটেও ভীতু নয়। আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগ পর্যন্ত আওয়ামী লীগ মাঠে থাকবে বলেও জানান দলের এই শীর্ষ নেতা।

 

একইসুরে কথা বলেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদও। তিনি বলেন, বিএনপি সমাবেশের মাধ্যমে সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করতে গিয়ে নিজেরাই পদত্যাগ করেছে। এই পদত্যাগের মধ্য দিয়ে সংসদের কোনো ক্ষতি হবে না। এই পদত্যাগের ফলে বিএনপির ক্ষতি হবে। সাত সংসদ সদস্য পদত্যাগ করায় এখানে নিয়মানুযায়ী উপনির্বাচন হবে। এতে বিএনপি সংসদে কথা বলার সুযোগ হারাবে। আগামী ২৪ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনের দিনে বিএনপির সারাদেশে গণমেছিল ডাকা দুরভিসন্ধিমূলক বলেও মন্তব্য করেন এই নেতা।

গণতন্ত্রকে বাধাগ্রস্ত করতেই বিএনপি এমপিদের পদত্যাগ: তথ্যমন্ত্রী

 

রোববার (১১ডিসেম্বর) সচিবালয়ে নিজ মন্ত্রণালয়ে সমসাময়িক নানা ইস্যুতে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

 

বিএনপির ৬ এমপির আসন শূন্য ঘোষণা, গেজেট প্রকাশ: বিএনপির সংসদ সদস্যরা পদত্যাগ করায় একাদশ জাতীয় সংসদের ছয়টি সংসদীয় আসন শূন্য ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করেছে সংসদ সচিবালয়। গত রোববার রাতে বাংলাদেশ সরকারি মুদ্রণালয় থেকে এ তথ্য জানা গেছে। আসনগুলো হলো: বগুড়া-৪ ও ৬, ঠাকুরগাঁও-৩, চাঁপাইনাবগঞ্জ-২, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ ও মহিলা আসন-৫০। তবে আবেদন যথাযথ না হওয়ায় মো. হারুন অর রশিদের চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসন শূন্য ঘোষণা করা হয়নি।

 

এসব আসনে পদত্যাগপত্র জমা দেন,  চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের মো. আমিনুল ইসলাম, বগুড়া-৪ আসনের মো. মোশাররফ হোসেন, বগুড়া-৬ আসনের জি এম সিরাজ, ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের জাহিদুর রহমান এবং সংরক্ষিত আসনের রুমিন ফারহানা। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের মো. হারুনুর রশীদ বিদেশে এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের আবদুস সাত্তার অসুস্থ থাকায় সশরীরে পদত্যাগপত্র দেননি।

 

এরআগে ২০১৮ এর নির্বাচনে বিএনপি জয় পায় ছয়টি আসনে। সেই নির্বাচনে বগুড়া-৬ আসন থেকে জয় পাওয়া মির্জা ফখরুল শপথ নেবেন না জানিয়ে দিলেও ঠাকুরগাঁও-৩ থেকে নির্বাচিত জাহিদুর রহমান সবার আগে শপথ নেন। পরে ২০১৯ সালের ২৯ এপ্রিল শপথ নেন চার সংসদ সদস্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের আমিনুল ইসলাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের হারুনুর রশীদ, বগুড়া-৪ আসনের মোশাররফ হোসেন ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের উকিল আব্দুল সাত্তার ভুঁইয়া। ফখরুলের আসন শূন্য ঘোষিত হলে ২০১৯ সালের ১২ জুনের উপনির্বাচনে বগুড়া-৬ আসনে জেতেন জি এম সিরাজ। ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে তিনটি কেন্দ্রে স্থগিত ভোট পরে অনুষ্ঠিত হলে জয় পান বিএনপি নেতা আবদুস সাত্তার ভুঁইয়া।

 

এরপর জাতীয় সংসদের ৩০০টি আসনে আনুপাতিক হারে বিএনপি সংরক্ষিত নারী আসনের একটি পায়। দলটি মনোনয়ন দেয় রুমিন ফারহানাকে, যিনি ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে মনোনয়ন চেয়েও পাননি।

 

সংবিধানের ৬৭(২) অনুচ্ছেদে বলা আছে, কোনো সংসদ সদস্য স্পিকারের নিকট স্বাক্ষরযুক্ত পত্রযোগে স্বীয় পদ ত্যাগ করিতে পারিবেন এবং স্পিকার কিংবা স্পিকারের পদ শূন্য থাকিলে বা অন্য কোনো কারণে স্পিকার স্বীয় দায়িত্ব পালনে অসমর্থ হইলে ডেপুটি স্পিকার যখন ওই পত্র প্রাপ্ত হন, তখন থেকে ওই সদস্যের আসন শূন্য হইবে।

 

একুশে সংবাদ/সফিকুল/পলাশ
 

Link copied!