ঢাকা মঙ্গলবার, ২৪ মে, ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

বাংলাদেশ পৃথিবীর কাছে ইন্টারনেটের সহজলভ্যতার জন্য রোল মডেল : মোস্তাফা জব্বার


Ekushey Sangbad
নিজস্ব প্রতিবেদক
০৬:৫০ পিএম, ১০ মে, ২০২২
বাংলাদেশ পৃথিবীর কাছে ইন্টারনেটের সহজলভ্যতার জন্য রোল মডেল : মোস্তাফা জব্বার
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ পৃথিবীর কাছে ইন্টারনেটের সহজলভ্যতার জন্য রোল মডেল, বলেছেন  বাংলাদেশে সফররত এলায়েন্স ফর এফোর্ডেবল ইন্টারনেট- (এফোরএআই) প্রতিনিধিদল।ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী জনাব মোস্তাফা জব্বার-এর সাথে আজ তার দপ্তরে সৌজন্য সাক্ষাতকালে তারা এ প্রশংসা করেন। 

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী ইন্টারনেটকে ডিজিটাল বাংলাদেশের মহাসড়ক আখ্যায়িত করে বলেন, আমাদের জীবনে ইন্টারনেট শ্বাস-প্রশ্বাসের মতো।দেশের মানুষের ডিজিটাল জীবনধারা নিশ্চিত করতে প্রতিটি অঞ্চলে নেটওয়ার্ক সুবিধা পৌঁছে দিতে সরকারের গৃহীত কর্মসূচি তিনি তুলে ধরেন। 

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি সম্পন্ন উদ্দ্যোগে ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচির ধারাবাহিকতায় দেশের প্রায় প্রতিটি ইউনিয়নে উচ্চগতির ব্রডব্যান্ড নেটওয়ার্ক পৌছে দেওয়ার পাশাপাশি দেশের শতকরা ৯৮ভাগ এলাকায় ৪জি নেট ওয়ার্ক পৌঁছে দেয়া হয়েছে।এরই মাঝে ৫জি স্পেকট্রাম নিলাম করা হয়েছে এবং ৫জি চালু করা হয়েছে।তিনি একই সাথে দেশের দুর্গম ও প্রত্যন্ত অঞ্চলে কানেক্টিভিটির প্রসারের দৃষ্টান্ত উল্লেখ করে বলেন যে এখন মধুপরের পাহাড় বা হাওরে বসে ইন্টারনেটের সহায়তায় তরুণ তরুণীরা বিদেশে আউটসোর্সিং এর কাজ করতে পারে। 

তিনি আরও বলেন, ২০০৮ সালে দেশে মাত্র সাড়ে সাত জিবিপিএস ইন্টারনেট ব্যবহৃত  হতো এবং ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিলো মাত্র ৮ লাখ।২০২০ সালে কোভিড শুরুর প্রাক্কালে দেশে ১০০০ জিবিপিএস ইন্টারনেট ব্যবহৃত হতো।বর্তমানে তা বেড়ে ৩৪৪০ জিবিপিএসে উন্নীত হয়েছে এবং ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় তের কোটিতে উন্নীত হয়েছে বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন।দেশে নেটওয়ার্কের বর্ধিত চাহিদা মিটিয়ে সৌদি আরব, ভারত ও ভূটানে ব্রডব্যান্ড রপ্তানি করা হচ্ছে।বাংলাদেশ তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবল সংযোগের কাজ শুরু করেছে।তৃতীয় সাবমেরিন সংযোগ সম্পন্ন হলে অতিরিক্ত আরও প্রায় তের হাজার দুই শত জিবিপিএস ব্যান্ডউইদথ সংযুক্ত হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

সাক্ষাতকালে প্রতিনিধিদল গত চার বছরে বাংলাদেশে উচ্চগতির ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সম্প্রসারণে সরকারের গৃহীত উদ্দ্যোগে ও অগ্রগতি অভাবনীয় বলে উল্লেখ করে।তারা ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের মূল্য সকল অঞ্চলের সকল মানুষের জন্য এক দেশ এক রেট কর্মসূচিকে একটি অনুকরণীয় উদাহরণ হিসেবে উল্লেখ করে এজন্য ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর ভূমিকার প্রশংসা করেন।

সংস্থার বাংলাদেশ সমন্বয়ক শহীদ উদ্দিন আকবর প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন।প্রতিনিধিদলের অপর সদস্যরা হলেন সংস্থার গ্রোবাল পলিসি বিষয়ক কর্মকর্তা এলিনোর এবং এশিয় প্রশান্তমহাসাগরীয় অঞ্চলের সমন্বয়কারী আনজু মাংগল।প্রতিনিধি দলের পক্ষ থেকে ইন্টারনেটের ব্যাপক প্রসার ও এটি সকল মানুষের কাছে সহজলভ্য করে পৌছে দেবার জন্য আহ্বান জানান।তারা উন্টারনেটের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অগ্রগতিকে অন্য দেশগুলোর কাছে উদাহারণ হিসেবে তুলে ধরার আশাবাদ ব্যবক্ত করেন।

 


একুশে সংবাদ/শে.হো/এস.আই