ঢাকা বুধবার, ২০ জানুয়ারি, ২০২১, ৭ মাঘ ১৪২৭
Ekushey Sangbad
Janata Bank
করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

ইংল্যান্ডে ৩য় দফার লকডাউন : স্কুল বন্ধ থাকলেও অনলাইনে চলবে শিক্ষা কার্যক্রম


Ekushey Sangbad
রেজাউল করিম মৃধা
১১:৪৪ এএম, জানুয়ারি ৬, ২০২১
ইংল্যান্ডে ৩য় দফার লকডাউন : স্কুল বন্ধ থাকলেও অনলাইনে চলবে শিক্ষা কার্যক্রম

কভিড-১৯ বা করোনাভাইরস মহামারিতে পৃথিবীর সবচেয়ে ঝাঁকিপূর্ণ দেশ বৃটেন। প্রথম এবং দ্বিতীয় ধাঁপের চেয়ে ৭০ গুন বেশী করোনার আক্রমণ থেকে বেঁচে থাকার জন্য ৪ঠা জানুয়ারি থেকে ১৫ই ফেব্রুয়ারি ২০২১ পর্যন্ত তৃতীয় জাতীয় লক ডাউন ঘোষনা করেন। ইংল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

সোমবার সন্ধ্যা ৮ টায় জাতির উদ্দেশ্যে একটি টেলিভিশন ভাষণে এই ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী।

যার মধ্যে রয়েছে :

১. সোমবার মধ্যরাত থেকে লোকদের ঘরে থাকার নির্দেশ। আগামী ফেব্রুয়ারির ১৫ তারিখ পর্যন্ত এই নির্দেশ বলবৎ থাকবে।

২. প্রাথমিক স্কুল, মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং কলেজ বন্ধ থাকবে যা আগামীকাল থেকে ফেব্রুয়ারির অর্ধেক মেয়াদ পর্যন্ত ব্যক্তিগতভাবে পাঠদান চলবে, যদিও নার্সারিগুলি খোলা থাকবে। 

৩. পরীক্ষাগুলি স্বাভাবিকের মতো এগোবে না এবং তার জায়গায় বিকল্প ব্যবস্থাও থাকবে। 

৪. লোকদের যেখানে সম্ভব সেখানে বাসায় থাকতে বলা হয়েছে এবং চিকিৎসার  কারণে কেবল সীমিত ছাড় দেওয়া হবে। ক্লিনিক্যালি দুর্বল লোকদের আবার ঝালাই শুরু করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। 

৫. যে দুর্বল শিশু এবং মূল কর্মীদের বাচ্চারা এখনও স্কুলে যেতে সক্ষম হবে এবং যে সমস্ত শিশুরা নিজ খরচায় স্কুল খাবার গ্রহণ করে তারা এখনও তাদের গ্রহণ করতে পারবে 

৬. স্কুল বন্ধ থাকলেও অন লাইনের মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম চলবে।

৭. স্কুল, কলেজসহ অপ্রয়োজনীয় পন্যের দোকান এখনো যা চালু ছিলো তা বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। 

৮. প্রয়োজন ছাড়া কাউকে ঘর থেকে বের হতে নিষেধ করা হয়েছে।

৯. নতুন ঘোষণায় যা রয়েছে তার সারমর্ম হচ্ছে সকল স্কুল আগামী হাফটার্ম (ফেব্রুয়ারী) পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। নার্সারি এবং স্পেশ্যাল স্কুল চালু থাকবে।

১০. শিশুরা বাবা-মা উভয়কে দেখতে পারবে, যদি তারা আলাদা থাকেন।

১১. বয়স্কদের ঘরে বা শেল্টার হাউজে থাকতে বলা হয়েছে।

১২. অপ্রয়োজনীয় সকল প্রকার পণ্যের দোকান বন্ধ রাখতে হবে। 

১৩. মাদকজাতীয় পণ্য টেইকয়ে দেয়া যাবে না।

১৪. আইন অমান্য করলে ২০০ থেকে ১০হাজার পাউন্ড পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে।

১৫. বিয়ে এবং ফিউনারেল সার্ভিস পূর্বে টায়ার ৪ আইন অনুযায়ী চলবে।

১৬. ইউনিভার্সিটির স্টুডেন্টদের আগামী ফেব্রুয়ারীর মাঝামাঝি পর্র্যন্ত ফিরতে নিষেধ করা হয়েছে।

১৭. আউট ডোর স্পোর্ট ভেন্যু বন্ধ থাকবে, তবে প্লেগ্রাউন্ড চালু থাকবে।

 ১৮. শরীর চর্চার জন্য বাইরে যাওয়া যাবে, মাত্র এক জনের সাথে দেখা করা যাবে।

১৯. সাপোর্ট এবং চাইল্ড কেয়ার বাবল অব্যাহত থাকবে।

২০. জরুরী ছাড়া বিদেশ সফর নিষেধ করা হয়েছে।

২১. স্কুল মিল ভাউচার অব্যাহত থাকবে।

২২. ব্রিটিশ সরকার শিক্ষাকে সবচেয়ে বেশী প্রাধান্য দিয়ে থাকে এবং এই কভিড এ এর ব্যাতিক্রম নেই। স্কুল বন্ধ কিন্তু সরকার লেখা পড়ার জন্য অন লাইন এবং বিকল্প ধারা অব্যহত রাখছে।পরীক্ষা নেওয়া থেকে শুরু করে সকল বিষয়ে চিন্তা করছে।

২৩. নতুন ব্যবস্থাগুলি করোনা ভাইরাসটির নতুন রূপের প্রতিক্রিয়া হিসাবে যা ৭০% বেশি সংক্রমণযোগ্য এবং “উদ্বেগজনক” হারে ছড়িয়ে পড়েছে। তিনি বলেছেন” ‘এটা পরিষ্কার যে ভ্যাকসিনগুলি চালু হওয়ার সময় এটিকে নিয়ন্ত্রণে আনতে আমাদের সবাইকে এক সাথে কাজ করতে হবে”।

কোভিড -১৯-এর নতুন রূপটি ছড়িয়ে পড়ায় দেশব্যাপী মামলার সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে। ‘প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট কর বলেছেন”  এই উত্থানকে বন্ধ করতে, এনএইচএসকে রক্ষা করতে এবং জীবন বাঁচাতে এখন আরও গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেওয়া উচিত”।

ভ্যাকসিন আমাদের আশার আলো দেখাচ্ছে। তবে সবাইকে সরকারি নিয়মনীতি মেনে চলতে হবে। আল্লাহ আমাদের সবাইকে হেফাজত করুন আমিন।

একুশে সংবাদ/এআরএম