ঢাকা সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

বঙ্গবন্ধু খুনের নেপথ্যে জিয়াউর রহমান: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী


Ekushey Sangbad
একুশে সংবাদ ডেস্ক
০৩:৪০ পিএম, ১৫ আগস্ট, ২০২১
বঙ্গবন্ধু খুনের নেপথ্যে জিয়াউর রহমান: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, বঙ্গবন্ধু খুনের নেপথ্যে মেজর জিয়াউর রহমান ছিলেন। এখন সেসব তথ্য-উপাত্ত পাওয়া যাচ্ছে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যাকারীদের জবানিতেও জানা গেছে জাতির পিতাকে হত্যার পেছনে ক্রীড়নকের ভূমিকায় ছিলেন জিয়াউর রহমান। যিনি হত্যাকারীদের বিচার বন্ধের ব্যবস্থা করতে ইনডেমনিটি বিলও পাস করেন ।

রোববার (১৫ আগস্ট) শাহবাগে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস প্রশাসনিক একাডেমিতে জাতীয় শোক দিবসে ‘বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা শীর্ষক’ আলোচনাসভায় প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী। এ সময় জনপ্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বঙ্গবন্ধুকে জানতে হবে। তাহলেই তারা জনবান্ধব প্রশাসনের কর্মী হিসেবে নিজেদের গড়ে তুলতে পারবেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন পরিষদের প্রধান সমন্বয়ক ড. কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

তিনি বলেন, আমাদের জাতীয় জীবনে আগস্ট মাস বা  শ্রাবণ হলো নিষ্ঠুর মাস।  ১৯৭৫ সালের ১৬ আগস্টে বঙ্গবন্ধুর মরদেহ নিয়ে হেলিকপ্টারে যে যাত্রা করা হয়, সেই থেকে শোক যাত্রা শুরু হয়। ১৯৮১ সালে বঙ্গবন্ধুকন্যা ফিরে আসায় আবারও জাতির জনকের বজ্রকণ্ঠ শুনতে পাই। আমাদের শোকযাত্রা এখনো শেষ হয়নি। তিনি বলেন, শোক থেকে শক্তি, শোক থেকে জাগরণ। এ স্লোগান নিয়েই আমাদের এগিয়ে যেতে হবে।

সরকারি তরুণ কর্মকর্তা যারা আছেন তারাও এখন বঙ্গবন্ধুকে জানতে, প্রশাসন কাঠামো বিনির্মাণে তার অবদান অবদান জানতে আগ্রহী হয়েছেন বলে মন্তব্য করেন তিনি। ড. কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী বলেন, বঙ্গবন্ধু সরকারি কর্মকর্তাদের কখনোই চাকর হিসেবে আখ্যায়িত করেননি। তিনি জনপ্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বলতেন জনগণের সেবক, জনগণের খাদেম। তিনি উল্লেখ করেন, চাকর শব্দটা ঔপনিবেশিক ভাবধারা থেকে এসেছে।

কামাল আব্দুল নাসের বলেন, যদি আমরা ভাষাতাত্ত্বিক দৃষ্টিতে দেখি তাহলে বাংলাদেশ বিশ্বে তৃতীয় বৃহত্তম দেশ। বিশ্বে বাঙালির একমাত্র জাতিরাষ্ট্র বাংলাদেশ। যার জন্ম হয়েছে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য নেতৃত্বে। এ জন্যই তিনি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি।

এ সময় মুজিববাদ গ্রন্থের উদ্ধৃতি দিয়ে ড. নাসের বলেন, সেখানে বঙ্গবন্ধুর বক্তব্যের একটি অংশে তিনি বলেছেন ‘আমার জাতীয়তাবাদ হচ্ছে বৈষম্যের বিরুদ্ধে জাতীয়তাবাদ, সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে জাতীয়তাবাদ, শোষিতের জাতীয়তাবাদ।’

তিনি বলেন, গ্রামকে কেন্দ্র করে দ্বিতীয় বিপ্লবের সূচনা করেছিলেন সেখানেও তিনি সরকারি কর্মকর্তাদের গুরুত্ব দিয়েছিলেন। তিনি যে সাড়ে তিন বছর ক্ষমতায় ছিলেন তখন খুব সহজ ছিল না সময়টা। কিন্তু দারিদ্র্যবিমোচন, যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশের রাস্তাঘাট অবকাঠামো উন্নয়ন, খাদ্য উৎপাদনসহ বিভিন্ন জনগুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে জোর দেন। এসব ইতিহাস তরুণ কর্মকর্তাদের জানা উচিত বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আলোচনায় বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধু একে অপরের পরিপূরক বলে মন্তব্য করেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, কে এম আলী আজম। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে এদেশে স্বাধীন হতো না। বিশ্বে আজকে বাংলাদেশের যে অবস্থান তা অত্যন্ত সম্মানের, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়েই এ দেশ এগিয়ে যাচ্ছে তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বলেন এই সচিব।

একুশে সংবাদ/স/তাশা