ঢাকা রবিবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২১, ১১ মাঘ ১৪২৭
Ekushey Sangbad
Janata Bank
করোনাভাইরাস মোকাবিলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

ঘুমের আগে যেসব  খাবার খাওয়া একেবারেই উচিত নয়


Ekushey Sangbad
একুশে সংবাদ ডেস্ক
০৬:৫৮ পিএম, নভেম্বর ১২, ২০২০
ঘুমের আগে যেসব  খাবার খাওয়া একেবারেই উচিত নয়

বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী, একজন প্রাপ্ত বয়স্ক ও সুস্থ মানুষের অন্তত সাত ঘণ্টা ঘুমানো উচিত।ঘুমের ক্ষেত্রে একটি নির্দিষ্ট রুটিন মেনে চলা উচিত।অনেকেই আছেন যারা ঘুম নিয়ে নানা সমস্যায় ভুগে থাকেন। এক জরিপে দেখা গেছে, বিশ্বের মোট জনসংখ্যার প্রায় ৪৫ শতাংশ ঘুমজনিত সমস্যায় ভোগে। ঘুমে সমস্যা হলে সেখান থেকে দেখা দিতে পারে আরও অনেক রোগ। ঘুম না আসার জন্য দায়ী বিষয়গুলোর মধ্যে রয়েছে আমাদের খাবারের তালিকাও।

এমন কিছু খাবার আছে যা ঘুমের আগে খাওয়া একদমই উচিত নয়। কারণ ঘুমাতে যাওয়ার আগে যদি এমন খাবার খান, যা আপনার ভালো ঘুমের জন্য সহায়ক নয়, তখন ঘুমে সমস্যা হবেই। এদিকে ঘুম ভালো না হলে পরদিন শরীর খারাপ লাগবেই। আর তার প্রভাব পড়বে সারাদিনের কাজে। তাই চলুন জেনে নেয়া যাক, কোন খাবারগুলো রাতে ঘুমের আগে বাদ দেবেন-

কফি ও মিষ্টি
মিষ্টিজাতীয় খাবার দেখে যতই খেতে ইচ্ছে করুক, ঘুমের আগে খেতে যাবেন না যেন। আইসক্রিম, চকোলেট, ক্যান্ডিবার ইত্যাদিতে ফ্যাট রয়েছে। ঘুমানোর আগে ফ্যাটযুক্ত কোনো খাবার খাবেন না। একবাটি দুধে কর্নফ্লেক্স মিশিয়ে খাওয়া সকালে আদর্শ নাস্তা হতে পারে, কিন্তু ঘুমাতে যাওয়ার আগে নয়। অতিরিক্ত কার্বোহাইড্রেট ঘুম আসার পক্ষে বাধা হতে পারে। কফির মতো চকোলেটও ঘুম নষ্ট করে।


রেড মিট ও পাস্তা
রেড মিট এমনিতেই কম খাওয়া ভালো। রাতে এড়িয়ে যাওয়া আরও ভালো। এটি বিএমআর বাড়িয়ে আমাদের শরীরের তাপ বাড়িয়ে দেয়। ফলে ঘুম গাঢ় হয় না। মাংস হজম হতেও বেশি সময় লাগে। যে কারণে রাতে মাংস না খাওয়া সবচেয়ে ভালো। পাস্তা অত্যন্ত ফ্যাটি খাবার। ঘুমের সময় দেহের ওজন বাড়িয়ে দেয়। ঘুমের আগে ঘরে তৈরি হালকা খাবার খাওয়াই ভালো। কারণ ঝাল বা রিচ খাবার আপনার শরীরে অস্বস্তির কারণ হতে পারে। খাবার খাওয়ার দু’ঘন্টা পরে তা হজম হতে শুরু করে। রাতে রিচ খাবার খেয়ে ঘুমাতে গেলে সারারাত আপনার পাচনতন্ত্র খাবার হজম করার কাজ চালিয়ে যাবে। তাতে ঘুম ভালো হবে না।

চিপস, শাক-সবজি ও স্ন্যাকস
শাক-সবজি আমাদের শরীরের জন্য উপকারী একথা সবাই জানি। কিন্তু এতে প্রচুর ফাইবার থাকায় পরিপাক হয় ধীরে। ফলে ঘুম আসতে দেরি হয়। আবার ভাজাপোড়া খাবারে প্রচুর মনোসোডিয়াম গ্লুটামেট থাকে যা ঘুমে সমস্যা তৈরি করে। চিপস, ভুট্টা, ভাজাপোড়া খাবার বা এ ধরনের বিভিন্ন খাবার বাইরে থেকে এনে খাবেন না। এর পাশাপাশি, পাস্তা বা পিৎজা এ ধরনের খাবার ফ্যাটি গোত্রীয়। এগুলো ঘুমের সময় দেহের ওজন বাড়িয়ে দেয়, এমনকী হৃদস্পন্দন অনিয়মিত করতে পারে।

একুশে সংবাদ/তাশা