ঢাকা শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

প্রতিবন্ধীর হাতে ছ্যাকা দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে স্কুলের প্রধান শিক্ষক


Ekushey Sangbad
একুশে সংবাদ ডেস্ক
০৭:৪১ পিএম, ১৩ জুলাই, ২০২১
প্রতিবন্ধীর হাতে ছ্যাকা দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে স্কুলের প্রধান শিক্ষক

মানুষ কতটা নির্দয় হলে বাঁক প্রতিবন্ধীর হাতে ছ্যাকা দিয়ে পুড়িয়ে দিতে পারে একজন অবুঝ শিশুকে । তাও আবার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এই কাজটি করেছেন বলে এলাকাবাসির অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার ২নং গাজীপুর ইউনিয়নের নিজমাওনা গ্রামে। স্থানীয়রা এলাকাবাসি জানান, নিজমাওনা গ্রামে মাইনুদ্দিন নামে এক শিক্ষক তার বাড়ির নির্মাণ কাজ করচিলেন। ১২ জুলাই তার বাড়িতে ওই বাঁক প্রতিবন্ধী ছেলে গিয়ে নির্মাণ কাজের বালি ও ইটের খোয়া নিয়ে খেলছিলেন। বিষয়দি ওই শিক্ষক দেখতে পেয়ে ওই বাঁক প্রতিবন্ধী ছেলেকে দরে আগুন দিয়ে হাতে ছ্যাকা দিয়ে পুড়ে দেন।

বাঁক প্রতিবন্ধী ছেলের পরিবার বিষয়টি জানতে পেরে ছেলেকে নিয়ে প্রথমিক চিকিৎসা করান। এই বিষয়টি এলাকায় তোলপার শুরু হলে ওই প্রধান শিক্ষক মাইনুদ্দিন মাষ্টার বাঁক প্রতিবন্ধী ছেলের চিকিৎসার সকল খরচ বহন করবেন বলে বাঁক প্রতিবন্ধী পরিবারকে আশ্বস্ত করেন। টাকা দিয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দিয়েছে সে জন্যই বাঁক প্রতিবন্ধী পরিবারের কোন অভিযোগ নেই বলে জানান এলাকার অনেকেই।

উপজেলার নিজমাওনা গ্রামের মোঃ বুলবুল মিয়ার ছেলে বাঁক প্রতিবন্ধী বিল্লাল হোসেন মিলন (১০)। একই গ্রামের মোঃ আঃ মজিদ মিয়ার ছেলে মাইনুদ্দিন মাষ্টার, বর্তমানে উপজেলার নগর হওলা গ্রামের নগর হাওলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত রয়েছে মাইনুদ্দিন মাষ্টার । বাঁক প্রতিবন্ধীর হাতে ছ্যাকা দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় নিজমাওনা গ্রামসহ এলাকার সচেতন মহল মাইনুদ্দিন মাষ্টারের এই নেক্কারজনক ঘটনার বিচার দাবি করেন।

এবিষয়ে মাইনুদ্দিন মাষ্টারকে একাদিকবার মোবাইল ফোনে ফোন করে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি। তাকে না পাওয়ার কারনে এই প্রতিবেদনে মাইনুদ্দিন মাষ্টারের বক্তব্য তুলে ধরা সম্ভব হয়নি।

 

একুশে সংবাদ/সানি/ব