ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট, ২০২২, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

তিনি কথা রাখেননি,তাই নির্বাচনী মাঠে যুদ্ধ ঘোষণা করেছি


Ekushey Sangbad
উপজেলা প্রতিনিধি
০৩:৫৭ পিএম, ২৭ ডিসেম্বর, ২০২১
তিনি কথা রাখেননি,তাই নির্বাচনী মাঠে যুদ্ধ ঘোষণা করেছি
ছবি: একুশে সংবাদ

ছবি: একুশে সংবাদ

শ্রীপুর প্রতিনিধি :আগামী ৫ জানুয়ারি ২০২২ ইং শ্রীপুর উপজেলার আটটি ইউনিয়নের নির্বাচন। তার মধ্যে অন্যতম হলো গাজীপুর ইউনিয়ন। জেলার মধ্যে এ ইউনিয়নের নানা ধরনের ঐতিহ্য আছে। এবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ঘিরে সাধারণ মানুষের কৌতূহল বেড়েছে চেয়ারম্যান পদে দুই প্রার্থীকে ঘিরে। বিএনপি নেতা আকরাম হোসেন আনারস প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র  প্রার্থী ও তার ভাগিনা আজাহার হোসেন তালুকদার নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থী।

দুই প্রার্থীর বাড়ি পাশাপাশি দুটি গ্রামে। এলাকায় এখন তাদের ঘিরেই চলছে আলোচনা। আত্মীয় স্বজনরাও দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে তাদের প্রার্থীকে জেতাতে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। তাদের কথা দুজন রক্তের সম্পর্ক হলেও নির্বাচনী মাঠে যেন একে অপরের  ভুলে নিজ নিজ অবস্থানে অটল।

শ্রীপুর উপজেলায় আটটি ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ৫ জানুয়ারি ২০২২ ইং। এর মধ্যে শুধু গাজীপুর ইউনিয়নেই প্রথমবারের মতো ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ হবে। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ৫ জানুয়ারি ভোটগ্রহণ। নির্বাচন ঘিরে এখন প্রার্থীদের বিরামহীন প্রচারণা চলছে। পোস্টারে ছেয়ে গেছে মোড়ে মোড়ে ও গ্রামগুলো।

নির্বাচনে বেশ কয়েকজন চেয়ারম্যান পদে অংশ নিয়ে মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আওয়ামীলীগ থেকে আজাহার হোসেন তালুকদার নৌকা প্রতীকে,স্বতন্ত্র প্রার্থী আকরাম হোসেন আনারস প্রতীকে, সিরাজুল হক মাদবার ঘোড়া প্রতীকে,আমিনুল ইসলাম মোটরসাইকেল প্রতীকে।


স্থানীয়রা জানান, নির্বাচনে বেশ কয়েকজন চেয়ারম্যান পদে অংশ নিলেও মূল লড়াইয়ে হবে আকরাম হোসেন ও সিরাজুল ইসলাম মাদবর এর মধ্যে। সে হিসেবে গাজীপুর পূর্ব এলাকার প্রার্থী হিসেবে সুবিধাজনক অবস্থানে আছেন ঘোড়া প্রতীক নিয়ে সিরাজুল ইসলাম মাদবর। তবে ভোটারদের মধ্যে ভালো ইমেজের কারণে আকরাম হোসেনও আছেন সমান অবস্থানে।

আওয়ামীলীগের প্রার্থী আজাহার হোসেন তালুকদার স্থানীয় মোসলেহ উদ্দিন মাস্টার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। বর্তমান সংসদ সদস্যের ঘনিষ্ঠ হিসেবে তাকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত করা হয় গত বছর। আওয়ামী লীগের সভাপতি হয়েই নানা বিতর্ক তৈরি করেন ইউনিয়নজুড়ে। তবে হঠাৎ করেই চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের জন্য নৌকা প্রতীক তুলে দেওয়া হয় তার হাতে। এতে ক্ষোভ তৈরি হয় আওয়ামী লীগের তৃনমূলের নেতাকর্মীদের মধ্যে।

ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দল ও প্রার্থী নির্বাচন নিয়ে তৃনমূলে বিভক্ত হয়ে যাওয়ায় এখনো অনেকটা কোণঠাসা নৌকা প্রার্থী। অনেকে মনে করছেন সুষ্ঠু ভোট হলে মূল লড়াই হবে আনারস ও ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থীদের মধ্যে।

আওয়ামী লীগের প্রার্থী আজাহার হোসেন তালুকদার বলেন, অনেক বুঝিয়েছি আমার মামাকে। এবার আমাকে ছাড় দেওয়ার জন্য, তিনি ছাড় দেননি। আমরা তার নির্বাচন করে একবার তাকে চেয়ারম্যান বানিয়েছি। এবার বলেছি দল আমাকে নৌকার মনোনয়ন দিয়েছে তাই সবাই মিলে আমাকে চেয়ারম্যান বানান। তিনি কথা রাখেননি। তাই নির্বাচনী মাঠে মামার বিপক্ষে যুদ্ধ ঘোষণা করেছি।

অঅনারস প্রতীকের প্রার্থী বিএনপি নেতা আকরাম হোসেন বলেন, তিনি গাজীপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান। সফলতার জন্য এবারও সাধারণ জনগণের প্রত্যাশা পূরণে প্রার্থী হয়েছেন। এছাড়া গত নির্বাচনে পরজয়ের পরও সাধারণ মানুষের পাশে থেকেছেন। জনগণ সুষ্ঠুভাবে ভোট দিতে পারলে এবার তিনি বিজয়ী হবেন।

তিনি আরও বলেন, আজাহার আমার আপন বোনের ছেলে। হঠাৎ করে সে প্রার্থী ঘোষণা দিল, দলও মনোনয়ন দিয়েছে। এভাবে তো আর নির্বাচন করা যায় না। আমি দীর্ঘদিন প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে নেমেছি। ভোটারদের রায়ের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তারা যাকে ভোট দেবে তাতেই জয় পরাজয় নির্ধারিত হবে। ভোটের মাঠে মামা-ভাগনে কোনো বিষয় নয়। 


একুশে সংবাদ/সা/গা/শ্রী/প্র/এইচআই.