ঢাকা শুক্রবার, ১৪ মে, ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮

সরকার নিবন্ধিত নিউজ পোর্টাল

Ekushey Sangbad
Janata Bank
Rupalibank

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক বিদ্যুতের শর্ট খেয়ে গুরুতর আহত


Ekushey Sangbad
ভোলার প্রতিনিধি
১২:০৩ এএম, ১১ এপ্রিল, ২০২১
ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক বিদ্যুতের শর্ট খেয়ে গুরুতর আহত

ভোলার লালমোহন পৌর শহরের বর্নালী সড়কের মাথায় লালমোহন পল্লী বিদ্যুতের লাইন ঠিক করার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক আরিফ বিদ্যুতের সর্ট খেয়ে গুরুতর আহত হয়েছে। ১০ এপ্রিল প্রতিদিনের মত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক আরিফসহ অনান্যরা কাজ করতে যায়। লালমোহন পৌরশহরের বর্নালী সড়কের মাথায় পিলার বেয়ে কাজ করার জন্য মাথায় উঠে শ্রমিক আরিফ। পিলারে উঠার সময় তরার জানত বিদ্যুতের লাইন বন্ধ । কিন্তু সে পিলারের মাথায় উঠে কাজ করা শুরু করলে হঠাৎ বিকট শব্দ হয় এবং আরিফ তার ধরে দাড়িয়ে থাকে। আরিফের অনান্য সহযোগীরা মূল লাইনে বিদ্যুৎ আছে বুঝতে পেরে দ্রুত মূল লাইন বন্ধ করার জন্য মোবাইলে পল্লীবিদ্যুৎ অফিসে বললে মূল লাইন বন্ধ করা হয়। পরে লালমোহন ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আরিফকে পিলারের মাথা থেকে উদ্ধার করে লালমোহন হাসপাতালে প্রেরণ করে, আরিফের অবস্থা বেগতিক থেকে লালমেোহন হাসপাতাল থেকে ভোলা সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়, ভোলা সদর হাসপাতালে থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল প্রেরণ করা হয়েছে। বিদ্যুতের তারে সট খেয়ে আরিফের হাত ও পা ঝলসে যায়। জানা যায় আহত আরিফের বাড়ী ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ এলাকায়।
এ ব্যাপারে লালমোহন পল্লীবিদ্যুতের ডিজিএম এসএম শাহিন আহসান কে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, পল্লীবিদ্যুতের লাইনের কাজ করে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। ঠিকাদারের কাজ শুরু করার নিয়ম অনুযায়ী আগে আমাদের কে অবহিত করে লাইন শার্টডাউন করে নেয়ার কথা। কিন্তু ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান আমাদেরকে অবহিত না করে এবং লাইন শার্টডাউন না করে শ্রমিক নিয়ে কাজ শুরুকরে। ফলে দুর্ঘটনা পতিত হয়।